হাসান তানভীর এর MOTO-TRAVEL ব্লগ

Its better to travel well, then to arrive – Buddha

Boga lake: An Extreme adventure by motorbike

আমি নিঃসন্দেহে বলতে পারি, ক্রেওকারাডং পর্বত এর পাশে ১১৬৭ ফিট উচ্চতায় পাহাড়ের চুড়াতে অবস্থিত রহস্যময়  বগালেক এর পথে মোটরবাইক দিয়ে করা এই অভিযানটি ছিলো আমার জীবনের সবচেয়ে ভয়ংকর মটরবাইক অভিযান।

কি পরিমান বিপদসঙ্কুল পথ পাড়ি দিতে হয়েছে আমাদের ৩ জন কে– তা ভাবলে রোম এখনো দাঁড়িয়ে যাচ্ছে। এ ছিলো নিছক জেদের বশে করা। তবে ঘুণাক্ষরেও ধারনা করিনি আমরা এতটা ভয়াবহ হবে অনেক উচ্চতার পাহাড়ি পথ গুলো।

 

DSC04076

কি পার করতে হয়নি আমাদের – খাড়া নেমে যাওয়া বালুর স্তূপময় আর পাথরে ভরা পথ দেখে রোম খাড়া হয়ে যেতো, তেমনি আবার খাড়া উঠে যাওয়া। উঠে আসার সময় আক্ষরিক অর্থে চিংড়ি মাছের মত বাইক গুলো লাফাচ্ছিলো। পাশে কি? ২ পাশেই ছিলো গভীর খাদ। একবার পড়লে মৃত্যু সম্ভবত অনির্বার্জ।

1604843_10200575950080331_45303183_n

রোহিত ভাইয়ের ফেজার। এটাই বগার শেষ রোড, যা আমরা পার হতে পারিনি।

 

সত্যি বলতে জীবন নিয়ে ফিরতে পেয়েছি, তাই আল্লাহর কাছে শুক্রিয়া। এই অভিযান শেষ করে আসার পর শুনেছিলাম ২ জন মারা গেছে বাইক নিয়ে।

বললে কারো বিশ্বাস হবে না এমনকি ৫০ ডিগ্রি খাড়া উঠে গেছে কিছু পথ – এই পথে নামাটা কি ভয়াবহ, ভিডিও দেখলে শুধু তখন ই ব্যাপারটা বুঝতে পারবেন। তবুও আমাদের সংকল্প ছিলো এর শেষ দেখে ছাড়বো। পেরেছিলাম আমরা।

বুধবার দিন রোহিত ও সাইদ ভাই কুমিল্লা থেকে চিটাগং পৌঁছালেন। আমরা নেভাল গিয়ে কাঁকড়া ভাজি খেলাম। এরপর হোটেল বুকিং দেয়া হলো ওনাদের জন্য।

সারারাত উত্তেজনায় ঘুম হয়নি। আমি ৬ টায় হোটেলে গিয়ে দেখি ২ জন ই ঘুমাচ্ছে। ২ জন রেডি হয়ে নিল। আমরা যাত্রা শুরু করি ৩০ জানুয়ারি ২০১৪, ভোড় সাড়ে ছটা। সাইফ ভাই একটু সময় নিলেন। উনি আবার রয়ে সয়ে কাজ করেন। এর প্রমান বারে বারে পেয়েছি। :) আমরা যাত্রা শুরু করি ৩০ জানুয়ারি ২০১৪, ভোড় সাড়ে ছটা।

বান্দরবন এর রোড এ ওনাদের ২ জনের বাইক ই পড়ে যায়। কারন, ওই রোড এ ট্রাকে করে লবন পড়ে কুয়াশাতে নোনা হয়ে ছিলো রাস্তা। আমরা ওখানেই নাস্তা করতে বসি। আমার চোখে ঘুম। ভেবেছিলাম ফিরে আসবো। ঘুম নিয়ে …কিন্তু পরে মত বদলে ফেলি।

1689944_10200575940560093_1742270711_n

এর পর থেকেই আমাদের খুব ধীরে চালাতে হয়েছিলো কেরানিহাট পর্যন্ত। এরপর বান্দরবন রোড এ গিয়ে যেন প্রান ফিরে পেলাম। দে টান। ওখানে আবার আমরা বিরতি দিলাম সেনা বাহিনির সাজানো গোছানো কেন্টিন এ। কফি ইত্যাদি খেলাম। আবার ছুটে চলা।

1459096_10200575944360188_1046572554_n

বান্দরবন এর সবুজে ঘেরা আঁকাবাকা রোড এ বাইক চালাতে কার না ভাল লাগে? দারুন লাগে – সব সময়। এই সব রোড মাড়িয়ে Y জংশন থেকে রুমা বাজার পৌঁছে সেনা কেম্প এ সাইন ইন করলাম, গাইড নেয়া হল পাতন কে। এর পর থানা তেও সাইন ইন করে রওনা দিলাম। রুমা বাজার পর্যন্ত এর আগেও গিয়েছি বাইক করে। ওখান থেকে গতবার বগালেক ঝিরিপথ দিয়ে ট্র্যাকিং করে গিয়েছিলাম।  যাত্রা আবার শুরু করলাম। এবারের পথ – Extreme.

প্রথম ছবি তোলা হল নীলগিরি যাওয়ার পথে।

DSC04062

1558491_10200575965680721_1119817137_n

রুমা বাজার পার হয়ে প্রথমে কয়েকটি কঠিন খাড়া পথ দেখে আমরা ভাবলাম, এমন ই হবে। ভাবলাম ণো চিন্তা। কিন্তু এর পর শুরু হলো আসল খেলা। সাইদ ভাইয়ের বাইক ৩ বার পড়লো। এত খাড়া, পড়ার পর আর স্টার্ট করে টেনে ওঠা যায় না। তাই লোক দের সাহাজ্য নিতে হলো।

DSC04067

এর পর কি হয়েছে, কিছুটা ভুমিকা আগেই দিয়েছি। সেটাই যথেষ্ট অনুমান করার জন্য। সাথে থাকছে ছবি, আর ভিডিও।

vlcsnap-2014-02-01-20h09m50s216

বাইক চালিয়ে নামার উপায় নেই। চাক্কা স্লিপ করে নেমে যায়। ভয়ংকর ব্যাপার।

পথ নিচে নেমে গেছে। পেছন বাইক টেনে ধরে রাখা হয়েছে – যাতে হড়কে বাইক রোল করে গড়িয়ে না পড়ে যায়। আক্ষরিক অর্থে এক ইঞ্চি এক ইঞ্চি করে বাইক নামাতে হয়েছে। চাকার গ্রিপ বালুময় মাটি কামড়ে একদম ই ধরতে পারছিলো না। বার বার স্লিপ করছিলো। খুব ভয় পাচ্ছিলাম আমরা। হাতের ব্রেক, পায়ের ব্রেক, ২ পাশে ২ পা দিয়ে মাটি ধরে রাখা, কিছুতেই বাইক সামলে রাখা যাচ্ছিলো।

 

1620481_10200575960400589_117396057_n

 

1897957_10200575950240335_1217598065_n (1)

বিশাল এই ষাঁড় টি পথে পড়লো। এটা বার্মাতে নিয়ে যাওয়া হচ্ছিলো।

এমন করে অনেক দুর পাড়ি দিয়ে প্রায় কাছে চলে এলাম। জানলাম,  এবারের শেষ এই লম্বা একটি পথ পাড়ি দিলেই সামনে গ্রামে বাইক রাখা যাবে। পথ দেখে এতক্ষন চালিয়ে আসা আমরাও ভড়কে গেলাম। সবচে লম্বা, আর সবচে নিচু পথ। আমরা নাম দিলাম “পুল সিরাত”। দোয়া দুরুদ পড়ে আবার শুরু করলাম।

এবং প্রায় এক ঘন্টার ভয়াবহ চেস্টার (আতঙ্ক নিয়ে ইঞ্চি ইঞ্চি করে নামা) পর আমার নেমে আসতে পারলাম আলহামদুলিল্লাহ।

আমরা বগালেকের কাছে কমলা পাড়া তে বাইক  রাখলাম। ফেললাম তৃপ্তির নিঃশ্বাস। সেদিন জানতাম না, কিন্তু কিছুদিন আগেই শুনলাম বাইক করে যেতে গিয়ে আমার কাজিনের ২ ফেন্ড মারা গেছে।

DSC04081

 

যাক, ওখানে হাত মুখ ধুয়ে চা-পানি খেলাম। জানে পানি দিলাম আর কি।  আমাদের অবস্থা খুব খারাপ হয়ে গিয়েছিলো এই যুদ্ধে।  ধুলা বালিতে পুরা ঢেকে গিয়েছিলাম। আর ঘামে চুর!  জামা কাপড় এখানে ছেঁড়া, সেখানে ছেঁড়া।

DSC04083

ওখানে বাইক রেখে বাকি পথটা ২০ মিনিট ট্র্যাকিং করে বগালেক পউছালাম, তখন প্রায় ৪ টা। আহ। কি শান্তি। সেনা ক্যাম্প এ আবার সাইন ইন।

সিয়াম দিদি কে আগেই বলা হয়েছিলো আমরা আসছি, খাবার যেন রাখে। গিয়ে আমরা খাবার এর উপর হামলে পড়লাম। ওখানে আরো একটা গ্রুপ ছিলো, তাদের সাথে খাওয়ার পর আড্ডা দেয়া হলো।

রাতে বেশ জমল। কারন আমাদের দেয়া হয়েছিলো লেকের উপর তৈরি করা বাশের একটি কটেজ।

DSC04101

ক্লান্ত ছিলাম – কিছুক্ষণ আড্ডা দিয়ে ঘুম। রাত ৩ টার দিকে সবাই উঠে গেলাম।  এত এত তারা উঠলো – দেখে পাগল হয়ে গেলাম সবাই। দারুন। অসাধারন। সমানে চলল ফটোগ্রাফি। সেই সব ছবি পরে দেয়া হবে।

1395254_10200575936719997_1956499501_n

 

৩১ জানুয়ারি ২০১৪

পরদিন সকালটা বেশ কাটলো বগা লেক এ। এখানের পরিবেশ টা অসাধারন লাগে। চারপাশে পাহাড় ঘেরা। এর মাঝে এই টুকরো নীল কেকের মত বগালেক।

DSC04104

সকালে জমিয়ে খিচুড়ি খেলাম। আহ। দারুন। সত্যি। সিয়াম দিদির রান্নার কোন তুলনা নেই। এবার লেকের পাড়ে ঘোরাফেরা, ছবি তোলা, আড্ডা ইত্যাদি সেরে রওনা দিলাম।

সাইদ ভাই এর বাইক এর জন্য পিক আপ আনা হলো।

DSC04108

বাইক তোলা হচ্ছে পিক আপ এ।

আমারটাও তুলেছিলাম, কিন্তু আবার নামিয়ে ফেলি। যা থাকে কপালে, বাইক চালিয়ে ই ফিরবো। আমি আর রোহিত ভাই বাইক চালিয়ে ফিরলাম, আর সাইদ ভাই গাড়িতে গেলেন। রুমা বাজার থেকে তিনি আবার বাইকে উঠলেন।

বান্দরবন ফিরে বাইক গুলো সোজা গ্যারেজ এ। আর আমরা লাঞ্ছ করে নিলাম।  প্রতিটা বাইক এর কি নানা প্রবলেম হয়েছিলো। যদিও তেমন বড় কোন ক্ষতি কারো ই হয়নি। রাত নয়টায় আমরা গ্যারেজ থেকে বের হয়ে হোটেল হিল ভিউ তে উঠলাম।

রাতে ঠিক হয়েছিলো আমরা যাবো দেবতার পুকুর, খাগড়াছড়ি। ওখানে সিস্টেম হোটেল এর বিখ্যাত খাবার খাব। কিন্তু রাত ২ টায় আমি ঝোক তুলে দিলাম। আমার প্ল্যান অনুযায়ী আমরা ঠিক করলাম যাবো কচ্ছপতলি। এই জায়গা বান্দরবন রোয়াংছড়ী যাবার পথে উপশাখা একটা পথ দিয়ে যেতে হয়।

১ ফেব্রয়ারি ২০১৪

আমরা হোটেল চেক আউট করে নাস্তা করলাম তাজিংডং এ। ৮ টায় রওনা দিলাম। অসাধারন পথ। ২ জন ই NIKON ক্যামেরা বের করে কিছুক্ষণ পর পর ছবি তুলতে লাগলো।

DSC04120

খুব সুন্দর একটি পথ। আমরা একদম শেষে মাথায় চলে গেলাম।

DSC04121

সাইদ ভাই থামলেই বাইক চেক করা শুরু করে।

ওখানে কিছুক্ষণ থেকে আবার ফিরে এসে, রওনা দিলাম সর্ন মন্দির এর রোড দিয়ে – এই রোড ফেরি পার হয়ে কাপ্তাই চলে গেছে।

DSC04124

এই রোড দিয়ে যেতে যেতে পাগল হয়ে গেলাম। এত মসৃণ – কার্পেট এর মত পথ। দারুন এঞ্জয় করলাম রাইড টা।

এর পর ফেরি পার হয়ে কাপ্তাই ঝম রেস্তোরা হয়ে বসলাম লেকের পাড়ে কি গার্ডেন যেন। (ঝুম রেস্তরার একটা ইউ টার্ন আছে। তার ঠিক আগে)  দারুন খাবার। এখানে লাঞ্চ করে ৩ ঘন্টা ছিলাম।

dsc_2974

1000951_10200575972320887_595983171_n

খাবারের সাথে বোনাস – কাপ্তাই লেকের অসাধারন ভিউ

 

এর পর আমি বিদায় নিয়ে চলে এলাম। রোহিত ভাই যাবেন কুমিল্লা, আর সাইদ ভাই ঢাকা। এখনো ওনারা পথে আছেন।

আশা করি শীঘ্রই ওনাদের নাইকনের ভালো ভালো কিছু ছবি, আর Action cam এর রোড গুলোর ভিডিও আপলোড করতে পারবো।

নোটঃ বগা লেকের উচ্চতা নিয়ে google এ যেসব তথ্য পাওয়া যায়, তার বেশিরভাগ ই ভুল। যেমন ৩০০০ ফিট, ২৭০০ ফিট ইত্যাদি। সত্যিকারের উচ্চতা হলঃ ১১৬৭ ফিট।

সোর্সঃ banglatrack

3 comments on “Boga lake: An Extreme adventure by motorbike

  1. Himu
    February 3, 2014

    Awesome!
    Boga lake e bike rekhe gelen kibhabe?!!!
    Porichito karo kache rekhechilen ki?!!!

    Liked by 1 person

    • Hassan Tanvir
      February 3, 2014

      কমলা পাড়া তে, একটা মুরং দের দোকানের পাশে রেখেছিলাম। আমাদের গাইড যেহেতু উপজাতি, সে বলাতে রেখেছি।

      Like

  2. Pingback: চন্দ্রঘোনা – নারানগিরি | হাসান তানভীর এর MOTO-TRAVEL ব্লগ

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s

Join 262 other followers

Contact Info

Email: black_guiter@hotmail.com Skype: hassan.tanvir1
copyright @ hassantanvir.wordpress.com 2015
%d bloggers like this: